fbpx

হযরত ডোনাল্ড ট্রাম্প (আঃ)

ধরুন আগামীকাল মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিচের কথাগুলো একটি প্রেস ব্রিফিং এ ঘোষনা করলেনঃ

১) ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে লড়াই কর এবং জেনে রাখ, নিঃসন্দেহে ট্রাম্প সবকিছু জানেন, সবকিছু শুনেন।

২) আর ম্যাক্সিকান, আফ্রিকান এবং মুসলিমদের হত্যা কর যেখানে পাও সেখানেই এবং তাদেরকে বের করে দাও সেখান থেকে যেখান থেকে তারা বের করেছে তোমাদেরকে। বস্তুতঃ ফেতনা ফ্যাসাদ বা দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি করা হত্যার চেয়েও কঠিন অপরাধ।

৩) তোমাদের উপর ম্যাক্সিকান, আফ্রিকান এবং মুসলিমদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে আইন করা হয়েছে, অথচ তা তোমাদের কাছে অপছন্দনীয়। পক্ষান্তরে তোমাদের কাছে হয়তো কোন একটা বিষয় পছন্দসই নয়, অথচ তা তোমাদের জন্য কল্যাণকর। আর হয়তোবা কোন একটি বিষয় তোমাদের কাছে পছন্দনীয় অথচ তোমাদের জন্যে অকল্যাণকর। বস্তুতঃ ট্রাম্প যা জানেন, তোমরা জানো না।

৪) অতএব যারা ম্যাক্সিকান, মুসলিম এবং আফ্রিকান, তাদেরকে আমি কঠিন শাস্তি দেবো ঘরে বাইরে এবং জেলখানাতে-তাদের কোন সাহায্যকারী নেই।

৫) খুব শীঘ্রই আমি ম্যাক্সিকান, আফ্রিকান এবং মুসলমানদের মনে ভীতির সঞ্চার করবো। কারণ, ওরা ট্রাম্পকে ভোট দেয় না এবং ট্রাম্পের বিরোধিতা করে। আর ওদের ঠিকানা হলো গুয়েতেমালা জেলখানা। বস্তুতঃ যারা সাদা চামড়ার খ্রিস্টান নয়, তাদের ঠিকানা অত্যন্ত নিকৃষ্ট।

৬) যখন নির্দেশ দান করেন ট্রাম্পের সমর্থকদের তোমাদের প্রিয় নেতা ট্রাম্প যে, আমি সাথে রয়েছি তোমাদের, সুতরাং তোমরা সাদা চামড়ার খ্রিস্টানরা নিজ নিজ চিত্তসমূহকে ধীরস্থির করে রাখ। আমি ম্যাক্সিকান, আফ্রিকান এবং মুসলমানদের মনে ভীতির সঞ্চার করে দেব। কাজেই গর্দানের উপর আঘাত হানো এবং তাদেরকে কাটো জোড়ায় জোড়ায়।

– উপরের বক্তব্যগুলো আগামীকাল ডোনাল্ড ট্রাম্প তার বক্তব্যতে বলতে শুরু করলে, এই বক্তব্যগুলোকে কী একবিংশ শতাব্দীর সবচাইতে ভয়াবহ বর্বর জঘন্য হেইট স্পিচ বলে গণ্য করা হবে, নাকি বিশ্ব শান্তির বাণী বলে বিবেচনা করা হবে?

নাকি এই বক্তব্যগুলোর মধ্যে বর্তমান সময়ের পরিপ্রেক্ষিত, প্রেক্ষাপট, সময়, পরিস্থিতি ইত্যাদি বিবেচনায় এনে, ম্যাক্সিকান, আফ্রিকান আর মুসলমানদের কূকীর্তির বিবরণ বর্ণনা করে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে জায়েজ করার চেষ্টা হবে? ট্রাম্পের বক্তব্যের মধ্যে মানবতা খুঁজে বের করা হবে? 

আমি আমি যদি ট্রাম্পের এই ভয়াবহ বর্বর বক্তব্যের তীব্র সমালোচনা করি, তাহলে কী আমাকে ট্রাম্পোফোব বলে বিবেচনা করা হবে?

বস্তুতপক্ষে, মধ্যযুগীয় আরব বর্বর চন্দ্র দেবতার কাছে ট্রাম্প তো শিশুমাত্র!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *